করোনার টিকা নিয়ে বিএনপি আবার অপপ্রচার

দ্বিতীয় ডোজের টিকা যথাসময়ে জনগণ পাবে: কাদের

দুরবিন নিউজ২৪,dorbinnews24,Bangla News, bangla News paper,Bangla All News paper List,bangla khobor,Bollywood,hindi movie,new movie 2021,tamil movie দুরবিন নিউজ২৪,dorbinnews24,how to earn money online without investment,how to make money online in nigeria,how to earn money online with google,how to earn money online without paying anything,how to earn money online for students,how to earn money online in india,how to earn money online in bangladesh,how to earn money online philippines,how to make money online for free
সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। ছবি: ফেসবুক থেকে নেওয়া

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের অভিযোগ করেছেন, বিএনপি আবারও করোনার ভ্যাকসিন নিয়ে অপপ্রচার শুরু করেছে। এ প্রসঙ্গে তিনি দেশের জনগণকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি আস্থা রাখার আহ্বান জানিয়ে এবং বলেছেন যে জনগণ প্রথম ডোজের মতো দ্বিতীয় ডোজের টিকাও যথাসময়ে জনগণ পাবে। রবিবার সকালে ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন। দলের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ উপ-কমিটি আয়োজিত খাদ্য ও সুরক্ষা আইটেম বিতরণে সড়ক পরিবহন মন্ত্রী কার্যত তাঁর সরকারী বাসভবন থেকে যোগ দিয়েছিলেন। ওবায়দুল কাদের বলেছেন, যারা সংশয়বাদী, তারা সবকিছুর মধ্যেই অনিশ্চয়তা খুঁজে পান। বিভ্রান্তি ছড়িয়ে দেয়। 

এই বিভ্রান্তি ও অপপ্রচার বিএনপির নতুন রোগ নয়। তারা দীর্ঘদিন ধরে ভাইরাসে সংক্রামিত হয়েছে। সেতুমন্ত্রী আশাবাদ ব্যক্ত করেছিলেন যে পরীক্ষিত ও মানববন্ধনকারী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাহসী ও দূরদর্শী নেতৃত্বে সংকট মোকাবেলায় অদম্য বাংলাদেশ জনগণের সাথে উন্নয়নের পথে এগিয়ে যাবে। ওবায়দুল কাদের মন্তব্য করেছিলেন যে বিএনপি নেতারা প্রতিদিন সরকারকে বিষিয়ে তুলছেন। তিনি বলেন, বিএনপি মহাসচিব লকডাউন নিয়ে অনেক গবেষণা করেছেন এবং তিনি জনগণকে সচেতন করার জন্য বক্তব্য দিলে করোনারি হার্টের অসুখ প্রতিরোধে এটি একটি ছোট তবে ইতিবাচক ভূমিকা নিতে পারত। পরে বলেছিলেন, লকডাউন সমাধান নয়। আবার লকডাউন পরিকল্পনা করা হয়নি। 

এখন তারা বলছে সরকার লকডাউনের নামে নেতাকর্মীদের উপর অত্যাচার করছে। এসব কথার প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপির লক্ষ্য সময়ে সময়ে অ্যামিবার উপস্থিতি পরিবর্তন করা এবং বিভিন্ন কথা বলে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করা। বিএনপি এখন দ্বিদলীয় রাজনীতিতে বিভ্রান্ত নয়। বিপরীতে ওবায়দুল কাদের মনে করেন যে তারা নিজেরাই বিভ্রান্ত। সড়ক পরিবহন মন্ত্রী বলেছিলেন যে চলমান লকডাউনের পরে যদি গণপরিবহণের সুযোগ দেওয়া হয় তবে প্রত্যেককে স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলতে হবে। অন্যথায়, সরকার আবার কঠোর লকডাউন দিতে বাধ্য হবে। তিনি শপিংমল, দোকান এবং বাজারে স্বাস্থ্যবিধি নিয়মের কঠোরভাবে অনুসরণ করারও আহ্বান জানান। 

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেওয়া ত্রাণ ও নগদ সহায়তায় যারা অনিয়ম করেন তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তিনি বলেছিলেন, ত্রাণ ও নগদ যাতে অপচয় না হয় সে জন্য সবার যত্ন নেওয়া উচিত। ত্রাণ যাতে সঠিক জায়গায় পৌঁছেছে সেদিকেও খেয়াল রাখতে হবে। সড়ক পরিবহনমন্ত্রী জানান, কলেরা মহামারী হওয়ার কারণে বরগুনা জেলার জন্য ২ হাজার উরসালাইন এবং ২০০ পুশ স্যালাইন বিতরণ করা হবে। এ ছাড়া ছাত্রলীগের মাধ্যমে বরিশাল বিভাগের অন্যান্য জেলায় ,৭,০০০ ওরসালিন এবং ৫০০ পুশ স্যালাইন বিতরণ করা হবে। 

দলের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ উপ-কমিটির চেয়ারম্যান একেএম রহমতউল্লাহ ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে সভাপতিত্ব করেন। এ সময় আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ, এএফএম বাহাউদ্দিন, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায়, দফতর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া, স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক রোকেয়া সুলতানা, শিক্ষা ও মানবসম্পদ সম্পাদক সম্মুন্নাহার উপস্থিত ছিলেন মাঝে মাঝে. উপ-সচিব সায়েম খান ও কেন্দ্রীয় নির্বাহী সদস্য আবদুল আউয়াল প্রমুখ।


আরও পড়ুন: 

Leave a Reply