শত শিশুর কণ্ঠে জাতীয় সঙ্গীতে শুরু বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী

শত শিশুর কণ্ঠে জাতীয় সংগীতে শুরু ‘মুজিব চিরন্তন’

দুরবিন নিউজ২৪,dorbinnews24,Bangla News, bangla News paper,Bangla All News paper List,bangla khobor,Bollywood,hindi movie,new movie 2021,tamil movie দুরবিন নিউজ২৪,dorbinnews24,how to earn money online without investment,how to make money online in nigeria,how to earn money online with google,how to earn money online without paying anything,how to earn money online for students,how to earn money online in india,how to earn money online in bangladesh,how to earn money online philippines,how to make money online for free
‘মুজিব চিরন্তন’ অনুষ্ঠানে মঞ্চে অতিথিরা। আজ বিকেলে প্যারেড গ্রাউন্ডেছবি: টিভি থেকে নেওয়া


বঙ্গবন্ধু হাঁটতে হাঁটতে হাঁটছেন। তার হাসির মুখের পেছনে নদীর মতো খেলা। মঞ্চের পাঁচটি সিঁড়ি বাংলাদেশের পাঁচ দশকের প্রতীকী প্রতীকের মতো! এভাবেই সাজানো হয়েছে ‘মুজিব চিরন্তন’-এর মঞ্চ সজ্জা। ‘মুজিব ১০০’ সাজানো এবং ফুলের সাথে মঞ্চের ঠিক সামনে লেখা। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার স্বর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে বুধবার বেলা সাড়ে ৪ টায় ১০ দিনের কর্মসূচি ‘মুজিব চিরন্তন’ শুরু হয়েছিল শত শত শিশুদের দ্বারা গাওয়া জাতীয় সংগীত ও দেশাত্মবোধক গানে। 

অনুষ্ঠানটি টেলিভিশনে সরাসরি সম্প্রচারিত হয়েছিল। ফেস মাস্ক পরে শিশুরা জাতীয় সংগীত দিয়ে তাদের অভিনয় শুরু করে এবং একের পর এক বেশ কয়েকটি দেশের গান তাদের কণ্ঠে শোনা যায়। শিল্পকলা একাডেমির বাচ্চাদের অভিনয় শেষ হয়েছিল ‘আমি জাতির পিতার স্বপ্নের দেশে জন্মগ্রহণ করেছি’ গানের মাধ্যমে। তারপরে প্রাক্তন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর অনুষ্ঠানটি পরিচালনা শুরু করেন। 

তাঁর অনুরোধে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ প্রধান অতিথি হিসাবে এবং মালদ্বীপের রাষ্ট্রপতি ইব্রাহিম মোহাম্মদ সালিহ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন। তখন তাদের সবার মুখে মুখোশ ছিল। কুরআন, গীতা, ত্রিপিটক এবং বাইবেল তিলাওয়াত শেষে একটি ভিডিও অ্যানিমেশন এবং মুজিব শতবর্ষী থিম সং পরিবেশিত হয়েছিল। এর আগে বেলা সাড়ে ৪ টার দিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের দুই মেয়ে শেখ রেহানা উপস্থিত ছিলেন। 

প্রধানমন্ত্রীর আগমনের কয়েক মিনিটের মধ্যেই রাষ্ট্রপতির স্ত্রী সেখানে উপস্থিত হয়েছিলেন। আবদুল হামিদ। সকালে মালদ্বীপের রাষ্ট্রপতি এবং তার স্ত্রী সকাল সাড়ে ৪ টা ৪৫ মিনিটে অনুষ্ঠানস্থলে পৌঁছে বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী তাদের স্বাগত জানান। মালদ্বীপের রাষ্ট্রপতি ইব্রাহিম মোহাম্মদ সালিহ বাংলাদেশের জনগণের সাথে ১০ দিনের উত্সবে যোগ দিতে আজ সকালে ঢাকায় পৌঁছেছেন। 

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী মহিন্দা রাজাপাকসা, নেপালের রাষ্ট্রপতি বিদ্যা দেবী ভান্ডারী এবং ভুটানের প্রধানমন্ত্রী লোটে শেরিংও দশ দিনের এই অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন। তিনি আজকের অনুষ্ঠানে অংশ না নিলেও চীনা রাষ্ট্রপতি শি জিনপিং, জাপানের প্রধানমন্ত্রী ইয়োশিহিদ সুগা, কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো এবং সাংবাদিক মার্ক টুলি ভিডিও বার্তার মাধ্যমে শুভেচ্ছা বার্তা পাঠিয়েছেন।

আরও পড়ুন: কীভাবে ঘরে বসে ইন্টারনেট থেকে অর্থ উপার্জন করবেন


সূত্র :প্রথমআলো
 

Leave a Reply