নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য বিক্রির ক্ষেত্রে ফেসবুকের মতো ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করে সক্ষমতা বাড়ানো।

ফেসবুকের মাধ্যমে ব্যবসায় সক্ষমতা বাড়াতে দেশে এইচটিটিপুলের ওয়েবিনার।

এইচটিটিপিএল বাংলাদেশ ফেসবুকের মতো ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করে সক্ষমতা বৃদ্ধি, দৈনন্দিন প্রয়োজনীয় জিনিস বিক্রির জন্য ডিজিটাল ক্রেতাদের সাথে যুক্ত হওয়া সহ বিভিন্ন বিষয়ে একটি ওয়েবিনারের আয়োজন করেছে।
 
ডিজিটাল মিডিয়া কোম্পানিগুলোর বৈশ্বিক অংশীদার এইচটিপুল বাংলাদেশ মঙ্গলবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলেছে, ‘নতুন ডিজিটাল ক্রেতাদের সাথে সংযোগ স্থাপন’ শিরোনামের ওয়েবিনারে দেশের এফএমসিজি এবং সিপিজি কোম্পানিগুলোর সঙ্গে বিপণনের বিভিন্ন উপায় নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে।
 
 
কিভাবে অনলাইন ব্যবসা শুরু করব, ফেসবুক বিজনেস একাউন্ট, অনলাইনে পণ্য বিক্রি, অনলাইনে কাপড়ের ব্যবসা, ব্যবসা কিভাবে করব, অনলাইনে কাপড়ের ব্যবসা করার নিয়ম, ব্যবসা সংক্রান্ত তথ্য, অনলাইনে ব্যবসা করার নিয়ম


 

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, প্রযুক্তির কল্যাণে ক্রেতারা এখন অনলাইনমুখী কেনাকাটায় ঝুঁকেছে। ওয়েবিনারে ক্রেতাদের কাছে পৌঁছানোর সেরা উপায়সহ বিভিন্ন বিষয়ে এফএমসিজি বিপণনকারীদের সক্ষমতা বাড়ানো নিয়ে পরামর্শ দিয়েছে এইচটিটিপুল বাংলাদেশ। ব্র্যান্ডগুলোর ব্যবসায়িক উন্নতি ঘটানো, ফেসবুক ডিসকভারি কমার্সসহ ক্রেতাদের আকৃষ্ট করার বিষয়গুলোও আলোচনায় উঠে আসে।
এইচটিটিপুলের ফেসবুক ক্লায়েন্ট পার্টনার শাম্মা রহমান বলেন, মহামারিতে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য কেনার ক্ষেত্রে পণ্য খুঁজে বের করা ও কেনার পদ্ধতিতে একটা পরিবর্তন এসেছে। এখন ফেসবুক ক্রেতাদের সঙ্গে সহজে যুক্ত হওয়ার জন্য ব্র্যান্ড ও খুচরা বিক্রেতাদের দারুণ সব সুযোগ করে দিচ্ছে। ফেসবুকের ডিসকভারি কমার্স ও নতুন টুলগুলোর সঙ্গে এফএমসিজি/সিপিজি ব্যবসাগুলোর পরিচয় করিয়ে দেওয়া এবং এসব টুলের মাধ্যমে তারা কীভাবে আরও ভালো করতে পারবে, সেসব বিষয়ে ওয়েবিনারে জানানো হয়।
ফেসবুকের সুবিধা নিয়ে সিপিজি বিজ্ঞাপনদাতারা এখন সম্ভাব্য ক্রেতাদের সঙ্গে যুক্ত হতে পারে বলে জানান এইচটিটিপুলের আরেক ফেসবুক ক্লায়েন্ট পার্টনার তিথি চৌধুরী। তিনি বলেন, দোকানে যাওয়ার আগেই ক্রেতারা নতুন পণ্য খুঁজে পাচ্ছেন। ফেসবুকের মাধ্যমে এই ক্রেতাদের লক্ষ্য করে প্রাসঙ্গিক কনটেন্ট দেখিয়ে মনোযোগ আকর্ষণ এবং সহজেই কেনাকাটার পরিবেশ নিশ্চিত করা যায়।
সূত্র: প্রথম আলো

 

Leave a Reply