এ বছর এশিয়া কাপ মাঠে গড়ানোর সুযোগ দেখছেন না

এশিয়া কাপ হবে না?

দুরবিন নিউজ২৪,dorbinnews24,Bangla News, bangla News paper,Bangla All News paper List,bangla khobor,Bollywood,hindi movie,new movie 2021,tamil movie দুরবিন নিউজ২৪,dorbinnews24,how to earn money online without investment,how to make money online in nigeria,how to earn money online with google,how to earn money online without paying anything,how to earn money online for students,how to earn money online in india,how to earn money online in bangladesh,how to earn money online philippines,how to make money online for free
২০১৮ সালে আরব আমিরাতে শেষবার অনুষ্ঠিত হয়েছিল এশিয়া কাপ। ছবি: এএফপি

গত বছর এশিয়া কাপ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। করোনার মহামারীর কারণে তিনি টুর্নামেন্টে খেলেননি। সবকিছু ঠিকঠাক চললে চলতি বছরের জুনে শ্রীলঙ্কায় মহাদেশীয় উৎকর্ষের টুর্নামেন্ট শুরু হতে পারে। হেরশা যদি ভোগেন তবে সে সম্ভাবনা দেখছেন না। প্রখ্যাত ভারতীয় ভাষ্যকার ও বিশ্লেষক এ বছর এশিয়া কাপে খেলার সুযোগ দেখছেন না। তবে ভোগল করোনার মহামারী নয়, ভারতের ব্যস্ত সময়সূচিকে দোষ দিয়েছেন।

এই বছর আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলতে ভারত খুব ব্যস্ত সময় কাটাবে। এই বছর এশিয়া কাপ অনুষ্ঠিত হয়নি তার অন্যতম কারণ হিসাবে ভোগল ভারতীয় জাতীয় দলের ব্যস্ত সময়সূচীটি দেখেছেন। বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালটি জুনে এশিয়া কাপের জন্য অনুষ্ঠিত হচ্ছে। বিরাট কোহলির ভারত এবং কেন উইলিয়ামসনের নিউজিল্যান্ডের মুখোমুখি হবে ১৮ থেকে ২২ জুন টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে। 

শুধু তাই নয়, বিরাট কোহলির দলও আগস্টে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে একটি টেস্ট সিরিজ খেলবে। তাদের দম ধরার সময় নেই এশিয়া কাপ কবে খেলা হবে?তবে ভারতীয় মিডিয়া আগে জানিয়েছে যে বিসিসিআই আবার এশিয়া কাপে দ্বিতীয় স্তরের দল পাঠাতে পারে। বিরাট কোহলিকে ছাড়াই ভারত গত এশিয়া কাপে বাংলাদেশকে হারিয়ে শিরোপা জিতেছিল। দেশটির ক্রিকেট বোর্ড আবারও পূর্ণ শক্তির দল না পাঠানোর কথা বিবেচনা করছে। কিছু দিন আগে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, দ্বিতীয় স্তরের ভারতীয় দলকে মহাদেশীয় আধিপত্যের প্রতিযোগিতায় দেখা যেতে পারে। 

ওপেনার শিখর ধাওয়ান দ্বিতীয় সারিতে দলকে নেতৃত্ব দিতে পারেন।এদিকে হেরশা ভোগলে মনে করেন, মাঠে টুর্নামেন্ট না খেলার সম্ভাবনা বেশি। ইউটিউব চ্যানেলে ভোগল বলেন, “শ্রীলঙ্কায় এশিয়া কাপ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা, তবে আমি মনে করি না এই টুর্নামেন্টটি মাঠে অনুষ্ঠিত হবে। ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালটি ২২ জুন শেষ হবে। ভারতীয় দল কমপক্ষে ২০ জুলাইয়ের মধ্যে ইংল্যান্ডে যেতে হবে, কারণ প্রথম ম্যাচটি ৪ আগস্ট, তাই ভারতকে যেতে হলে টি-টোয়েন্টিতে ডুবে থাকার কোনও কারণ নেই ইংল্যান্ডযেতে হয়। 

বিশ্বব্যাপী করোনার পরিস্থিতিতে, ২২ জুন অবধি লন্ডনে থাকা একটি দলের পক্ষে এই মাসের শেষে শ্রীলঙ্কায় যাওয়া কোনও টুর্নামেন্টে অংশ নেওয়া কঠিন। কারণ, দলগুলিকে সমস্ত দেশে কোয়ারানটাইন পর্বে যেতে হবে। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে আগস্টে পাঁচ টেস্টের সিরিজ শুরু করবে ভারত। এই পরিস্থিতিতে, ভারত জুনে একবার ইংল্যান্ডে গিয়ে শ্রীলঙ্কায় ফিরে এসে আবার ইংল্যান্ডে যাওয়ার ঝুঁকি নেবে কিনা তা নিয়ে প্রশ্ন থেকেই যায়। 

বিসিসিআইয়ের এক ঘনিষ্ঠ একটি সূত্র গণমাধ্যমকে বলেছে যে (এশিয়া কাপে মূল দল পাঠানোর) কোনও সম্ভাবনা নেই। ইংল্যান্ড সিরিজের প্রস্তুতি নিয়ে আমরা কোনও ঝুঁকি নিতে রাজি নই। আর ক্রিকেটাররা দু’বার পৃথকীকরণে যেতে পারেন না। যদি এশিয়া কাপ হয় তবে ভারতে দ্বিতীয় দল পাঠানো ছাড়া উপায় নেই। গতবার ভারত রোহিত শর্মার নেতৃত্বে এশিয়া কাপ খেলতে এসেছিল। কোহলি ছিলেন না। খলিল আহমেদ, শারদুল ঠাকুর, অক্ষর প্যাটেল, মনীষ পান্ডে-র মতো খেলোয়াড়দের দলে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছিল।

আরও পড়ুন: Like App থেকে কীভাবে উপার্জন করবেন

Leave a Reply