বাংলাদেশ ব্যাংকের সহকারী পরিচালক নিয়োগ

দৈনিক চাকরির খবর, বাংলাদেশ ব্যাংকের সহকারী পরিচালক নিয়োগের ভাইভা প্রস্তুতি। বাংলাদেশ ব্যাংকে ১৮৮ পদে সহকারী পরিচালক (জেনারেল) নিয়োগের ভাইভা শুরু হবে ১৬ এপ্রিল থেকে। প্রিলি ও রিটেনে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই পেরিয়েও যদি ভাইভায় ভালো না করেন, তাহলে এত দিনের পরিশ্রমই বৃথা হয়ে যাবে। ভাইভার আগমুহূর্তের প্রস্তুতিমূলক পরামর্শ দিয়েছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের উপ-পরিচালক মো. মাসুদুর রহমান ও রাসেল সরদার।

অবশ্যই পড়বেন –

 

জানতে হবে নিজ বিষয়ে: বিশ্ববিদ্যালয়ে আপনার পঠিত বিষয়ের মৌলিক টপিকগুলো ভালোভাবে আয়ত্ত করা এবং উক্ত পঠিত বিষয় থেকে অর্জিত জ্ঞান ব্যাংকিং সেক্টরে কিভাবে প্রয়োগ করবেন, সে সম্পর্কে স্পষ্ট ধারণা থাকা; আপনার নিজের সম্পর্কে গুছিয়ে বলার মতো প্রস্তুতি থাকা; সংশ্লিষ্ট চাকরিটি কেন আপনার পছন্দ ও সংশ্লিষ্ট চাকরির জন্য কেন আপনাকে বেছে নেওয়া হবে, এ সম্পর্কে ধারণা রাখা। এ ছাড়া আপনার পঠিত স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কিত গুরুত্বপূর্ণ তথ্যও জানা থাকতে হবে। এসব প্রতিষ্ঠানে পড়াশোনা করা বিশিষ্ট ব্যক্তি সম্পর্কেও জানার চেষ্টা করুন। ভাষা আন্দোলন, মুক্তিযুদ্ধ ইত্যাদিতে নিজ এলাকার সঙ্গে সম্পর্কিত কোনো ঘটনা আছে কি না খোঁজ করুন।

Read More

দৈনিক চাকরির খবর ২০২২,  দৈনিক চাকরির খবর,  দৈনিক চাকরির খবর 2022,  দৈনিক চাকরির খবর পত্রিকা,  দৈনিক চাকরির খবর চট্টগ্রাম,  দৈনিক চাকরির খবর ২০২3,  দৈনিক চাকরির খবর বেসরকারি,  দৈনিক চাকরির খবর প্রথম আলো,  দৈনিক চাকরির খবর সিলেট,  দৈনিক চাকরির খবর ঢাকা,
দৈনিক চাকরির খবর ২০২২

আপনার এলাকা মুক্তিযুদ্ধের সময় কত নম্বর সেক্টরের আওতাভুক্ত ছিল, খেতাবপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধার নাম, নিজ এলাকার কবি, সাহিত্যিক, রাজনৈতিক অন্যান্য বিশিষ্ট ব্যক্তি, নদ-নদী, প্রাকৃতিক ও ঐতিহাসিক স্থান, পর্যটনকেন্দ্র ইত্যাদি নিয়েও ভাইভায় প্রশ্ন করা হতে পারে।

ব্যাংকিং সেক্টর সম্পর্কে ধারণা: কেন্দ্রীয় ব্যাংকসহ ব্যাংকিং ব্যবস্থায় যুক্ত সরকারি-বেসরকারি, দেশি-বিদেশি, ইসলামিক-ট্র্যাডিশনাল, তালিকাভুক্ত-অতালিকাভুক্ত, বিশেষায়িত ইত্যাদি ব্যাংক সম্পর্কে বিস্তারিত জানুন। জেনে নিন তাদের মধ্যকার কাজের পার্থক্যগুলো। ব্যাংকিং সম্পর্কিত বিভিন্ন টার্ম, যেমন—Repo, Rever Repo, Call Money, Bank Rate, Bank Note, SLR, CRR, T-bill, Loan, Mortgage, NPL, Deposit, Interest, Debit-Credit Card, Cheque, Bill, PO, Money Laundering, Clearing, BACH, RTGS, CAMeLS Rating, LC, BoP, NOSTRO-VOSTRO Account, CASA, LHOR, Mobile-Internet-Green-Retail Banking ইত্যাদিসহ গুরুত্বপূর্ণ টার্মগুলো জানুন।

 

অর্থনীতির মৌলিক বিষয়ে জানাশোনা: আপনি যে বিষয়েই পড়াশোনা করুন না কেন, ব্যাংকের ভাইভা বোর্ডে যাওয়ার আগে অর্থনীতির একবারে মৌলিক বিষয় সম্পর্কে ধারণা থাকতে হবে। যেমন—মনিটারি পলিসি, ফিস্কেল পলিসি, বাজেট, জিডিপি, জিএনপি, মাথাপিছু আয়, ফরেক্স রিজার্ভ, বৈদেশিক রেমিট্যান্স, মুদ্রাস্ফীতি, মুদ্রা সংকোচন, মানি মাল্টিপ্লেয়ার, ব্রড মানি, ন্যারো মানি, মানি মার্কেট, ক্যাপিটাল মার্কেট, বৈদেশিক বিনিয়োগ, বৈদেশিক বিনিময় হার, চাহিদা, জোগান, আমদানি, রপ্তানি ইত্যাদি। এ ছাড়া দেশের প্রধান অর্থনৈতিক খাত ও উপখাত সম্পর্কে ধারণা নিন। গার্মেন্ট সেক্টরসহ অন্যান্য রপ্তানি পণ্য সম্পর্কেও ধারণা নিন।

আন্তর্জাতিক আর্থিক প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে জানুন: ব্যাংক ভাইভায় বিভিন্ন সময় আন্তর্জাতিক আর্থিক প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে প্রশ্ন করা হয়ে থাকে। তাই এসব প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে ভালো ধারণা রাখতে হবে। প্রতিষ্ঠানগুলোর অবস্থান, প্রতিষ্ঠানপ্রধানের নাম, কাজ এবং বাংলাদেশের সঙ্গে তাদের উল্লেখযোগ্য কোনো কাজ বা চুক্তি থাকলে সে সম্পর্কেও পড়াশোনা করুন| WB, IFM, ADB, IDB, NDV, ACU, WTO, EU, NAFTA, APEC, OPEC, BRICS, G-7, G-20, SAARC, APG, NEXT-11, GCC, ASEAN-এর মতো বিভিন্ন আন্তর্জাতিক আর্থিক প্রতিষ্ঠান ও সংস্থা সম্পর্কে প্রশ্ন হতে পারে।

ভাইভা প্রস্তুতি সহায়িকা: ব্যাংক ভাইভা সম্পর্কিত বিভিন্ন বই বাজারে কিনতে পাওয়া যায়। একজন ভাইভা প্রার্থীকে কী কী প্রশ্ন করা হতে পারে, এগুলো বই থেকে দেখে অজানা প্রশ্নের উত্তরগুলো খাতায় নোট করে রাখুন। এ ছাড়া ভাইভা প্রস্তুতির জন্য বাংলাদেশ ব্যাংকের ওয়েবসাইটেরও সাহায্য নিতে পারেন।

জানতে হবে আরো কিছু: দেশি ও আন্তর্জাতিক সাম্প্রতিক ঘটনা সম্পর্কে আপডেটেড থাকুন। এসব ঘটনা অর্থনীতির ওপর কী প্রভাব ফেলতে পারে, জানুন। যেমন—আমাদের গার্মেন্ট সেক্টর বা অর্থনীতির ওপর করোনার প্রভাব; যুক্তরাষ্ট্র-চীন বাণিজ্যযুদ্ধ আমাদের অর্থনীতিকে কিভাবে প্রভাবিত করতে পারে ইত্যাদি। এ ছাড়া করোনা মোকাবেলায় বাংলাদেশ ব্যাংকের গৃহীত পদক্ষেপ, সহকারী পরিচালক পদের কাজ ও দায়দায়িত্ব, সুযোগ-সুবিধা, মুক্তিযুদ্ধ, বঙ্গবন্ধু ও ভাষা আন্দোলন সম্পর্কেও ধারণা থাকতে হবে।

অবশ্যই পড়বেন –

 

ভাইভার আগে খেয়াল রাখুন: ভাইভা বোর্ডে যেসব কাগজপত্র নিয়ে যেতে বলা হয়, সেগুলো আগের দিনই গুছিয়ে রাখুন। ভাইভা পরীক্ষার আগের রাতে যেন পর্যাপ্ত ঘুম হয়, সেদিকে খেয়াল রাখুন। ছেলেরা স্যুট-টাইসহ সম্পূর্ণ অফিশিয়াল ড্রেস আর মেয়েরা মার্জিত ডিজাইনের শাড়ি বা থ্রিপিস পরার চেষ্টা করুন। এ ক্ষেত্রে হালকা রঙের জামদানি শাড়ি পরা যেতে পারে। অতিরিক্ত অলংকার ও মেকআপ পরিহার করুন। খালি পেটে ভাইভা দিতে না যাওয়া ভালো। মা-বাবার দোয়া নিয়ে হাতে যথেষ্ট সময় নিয়ে ভাইভা দিতে রওনা হন। ঢাকার রাস্তায় জ্যাম থাকতে পারে সেদিকে খেয়াল রাখুন। পকেটে একটি কলম রাখুন, যা ভাইভা বোর্ডে কাজে লাগতে পারে।

ভাইভা বোর্ডে করণীয়: ভাইভা বোর্ডের রুমের দরজাটা এক হাতে ঠেলে ধরে ভেতরে প্রবেশের আগেই স্যারদের অনুমতি নিন, কাছাকাছি গিয়ে স্বাভাবিক শব্দে সালাম/নমস্কার/আদাব দিতে পারেন। অনুমতি দেওয়ার পর বসুন। কিছুক্ষণ অপেক্ষার পরও বসতে না বললে বসার জন্য অনুমতি চাইবেন এবং বসার পর ধন্যবাদ জানাবেন। কাত হয়ে, হেলে পড়ে, নুয়ে বা রোবটিক ভঙ্গিতে বসবেন না; একজন ব্যাংক কর্মকর্তা তাঁর গ্রাহকের সামনে যেভাবে চেয়ারে বসা উচিত ঠিক সেভাবে বসুন।

বসার পরই অনেকে নার্ভাস হয়ে পড়েন, এ ক্ষেত্রে আত্মবিশ্বাস ধরে রাখুন। ভয়ের কোনো কারণ নেই। উত্তর দেওয়ার সময় কৌশলী হোন। কারণ আপনার দেওয়া উত্তরের সূত্র ধরেই পরের প্রশ্নটি করা হতে পারে। পুরো প্রশ্ন শোনার পর ঠাণ্ডা মাথায় উত্তর দিন, তাড়াহুড়া বা আন্দাজে উত্তর দেওয়ার ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে। যিনি প্রশ্ন করবেন, তাঁর দিকে আই-কন্টাক্ট রাখুন। বাংলায় প্রশ্ন হলে বাংলায় আর ইংরেজিতে প্রশ্ন হলে ইংরেজিতেই উত্তর করুন। চেহারায় মৃদু হাসি হাসি ভাব রাখার চেষ্টা করুন। অর্থাৎ বোর্ডে আলোচনার মধ্যে নিজেকে মিশিয়ে ফেলুন। কোনো প্রশ্নের উত্তর না জেনে থাকলে আদবের সঙ্গে বলুন—স্যরি স্যার, বিষয়টি আমি জানি না বা এই মুহূর্তে আমার মনে পড়ছে না। কিছু জানা থাকলে ততটুকুই উত্তর দিয়ে বলুন—স্যরি স্যার, এ সম্পর্কে আমি আর জানি না।

ভাইভা বোর্ডে আপনার সঠিক উত্তরও যদি সঠিক বলে গ্রহণ করা না হয়, তাহলে বিনয়ের সঙ্গে মেনে নিন এবং বলুন—স্যরি স্যার, আমি এতটুকুই জানতাম।

 

News Sources: kalerkantho

#দৈনিকচাকরিরখবর #চাকরিরখবর২০২২

Leave a Reply